শরীরের মাপ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অশ্লীল মন্তব্য অভিনেত্রীকে, মোক্ষম জবাব অভিনেত্রী এনা সাহার

গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রির মানুষজনদেরকে প্রায়শয়ই গায়ের রং নিয়ে উচ্চতা নিয়ে কটাক্ষ সহ্য করতে হয়। তার সবথেকে বড় উদাহরন হলেন ‘ত্রিনয়নী’ সিরিয়াল খ্যাত অভিনেত্রী শ্রুতি দাস। গায়ের রং শ্যামলা হওয়ার কারণে তাকে একাধিকবার কটূক্তি ও অশ্লীল বাক্য শুনতে হয়েছে। এত ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্ত্বেও গায়ের রং শ্যামলা হ‌ওয়ার কারণে তার অভিনয় জগতে সুযোগ পাওয়া নিয়েই উঠেছে প্রশ্ন। তবে শ্রুতি দাস একা নন, তার আগেও এই বডি শেমিং ব্যাপারটা ছিল।
“‌ আমাদের চারপাশে থাকা মানুষগুলোর মধ্যেই যখন আমরা এতোটুকু খুঁত সহ্য করতে পারিনা , তখন গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে থাকা মানুষগুলোই বা কেন ছাড় পাবে! ”এ রকমই একটা মানসিকতা থেকে গায়ের রং, উচ্চতা, স্থূলতা নিয়ে গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রির মানুষ গুলোর দিকে কুরুচিকর মন্তব্য ছুঁড়ে দেওয়া হয় প্রকাশ্যে, তারাই হয়ে ওঠে সফট টার্গেট।

Image Source – Ena Saha (@ena1996gemini)

সমাজের একাংশের মানুষের ধারণা রুপোলি পর্দার অভিনেত্রীদের সর্ব অর্থে সুন্দরী হতে হবে, আর সেই হিসেব যাদের যাদের ক্ষেত্রে মেলেনা তাদের নিয়েই শুরু হয় আক্রমণ, হাসি ঠাট্টা, ট্রোলিং। সমাজের সেই একাংশের মানুষের দৃষ্টিতে সর্ব অর্থে সুন্দরী নন অভিনেত্রী এনা সাহা। তার ভারী চেহারার কারণে প্রায়‌শয়‌ই নানান রকম কটাক্ষ শুনতে হয় তাকে, তার পুরু ঠোট থেকে শুরু করে তার বাড়তি ওজন সব নিয়েই তাদের আপত্তি। ভারী চেহারার কারণে ট্রোল করা হয় অভিনেত্রীকে। তবে এই সমস্ত কিছুতেই পাত্তা দেন না দৃঢ় ও বলিষ্ঠ মানসিকতার অভিনেত্রী অভিনেত্রী এনা সাহা।

Source – Ena Saha (@ena1996gemini)

সমালোচকদের সমালোচনাকে পাত্তা না দিয়ে এনা নিজের মত করে জীবন যাপন করেন। নিজের ওপর hতিনি সম্পূর্ণরূপে বিশ্বাস রাখেন আর তাই সমাজের এই সংকীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি মূলে আঘাত হানলেন তিনি তাও অভিনব উপায়ে। এতদিন তাকে যা যা কটাক্ষ শুনতে হয়েছে সেই সকল কটাক্ষের মধ্যে থেকেই কিছু কথা নিজের শরীরে লিখে নিয়ে তিনি হাজির হলেন সকলের সামনে।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল একটি ভিডিও দিয়েছেন তিনি আর সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে সাদা কাপড়ের উপর ফুলের ডিজাইন করা সুন্দর ড্রেস পরে হাতে একটি প্লাকার্ড নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। যতটা মাধুর্য্যময়ী তাকে দেখতে লাগছে, তার থেকেও অনেক গুণ বেশি বলিষ্ঠ লাগছে তাকে। তার দাঁড়ানোর ভঙ্গিমা ও তার চোখের চাউনি সবকিছুর মধ্যেই যেন প্রতিবাদের একটা ভাষা লুকিয়ে আছে, আর অভিনেত্রীর বাঁ হাতে বড় বড় হরফে লেখা আছে,“টু লার্জ”।

এছাড়া শরীরের অন্যান্য অংশেও দেখা যাচ্ছে যে লেখা আছে, ভারি চেহারা নিয়ে তিনি বিন্দুমাত্র চিন্তিত নন। হাতের প্ল্যাকার্ডে আবার লিখেছেন,“Stop Shaming! I am confident enough.”অর্থাৎ কটাক্ষ করে কোনো লাভ নেই, নিজের ব্যাপারে আমি যথেষ্ট‌ই আত্মবিশ্বাসী। বডি শেমিং এর বিরুদ্ধে তার অভিনব এই প্রতিবাদ নিঃসন্দেহে অভিনন্দনযোগ্য।

One thought on “শরীরের মাপ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অশ্লীল মন্তব্য অভিনেত্রীকে, মোক্ষম জবাব অভিনেত্রী এনা সাহার

error: Content is protected !!