রাম মন্দির নির্মাণের জন্য চাঁদা দিন,আবেদন জানালেন অক্ষয় কুমার

দীর্ঘ কয়েক দশকের বিতরকের অবসান ঘটেছে এবং অবশেষে অযোধ্যার বিতর্কিত অযোধ্যা মামলার রায় গিয়েছে হিন্দুদের হয়ে এবং অযোধ্যার শিল্পা একর জমিতে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।এবং মন্দির লাগোয়া জায়গাতেই মুসলিমদের জন্য মসজিদ নির্মাণের নির্দেশ দিয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। ইতিমধ্যেই রাম মন্দির নির্মাণের ভূমি পুজো অনুষ্ঠিত হয়েছে গত বছরে। তবে তারপর থেকে জোরদার উত্তর প্রদেশের অযোধ্যা রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু করতে চাইছে সে দেশের সরকার।বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন রকমের সাহায্য এসেছে কিন্তু তারপরেও প্রয়োজন অনেক অনেক টাকার তাই ইতিমধ্যেই সমস্ত পরিবারের তরফে চাঁদা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ঠিক রাম মন্দিরের পক্ষে যারা রয়েছেন তারা ইতিমধ্যে চাঁদা সংগ্রহের কাজ শুরু করেছে।আর্থিক সেভাবেই রাম মন্দিরের জন্য চাঁদা সংগ্রহের উদ্যোগ নিয়েছেন অক্ষয় কুমার।নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে রামায়ণের গল্প শুনিয়ে সকল কে উৎসাহিত করার চেষ্টা করেছেন ওকি এর পাশাপাশি রাম মন্দিরের অনুদান দেওয়ার আবেদন জানাতে দেখা গিয়েছে অক্ষয় কুমারকে।এই নিয়ে নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন।সেখানেই তিনি কাঠবিড়ালির গল্প শুনিয়েছেন।ছোট কাঠবিড়ালি রাম সেতু বানাতে কিভাবে সাহায্য করেছিলেন এবং সেই সেতু দিয়ে শ্রীরাম লঙ্কায় পৌঁছেছিলেন তা জানিয়ে কাঠবিড়ালির গল্প সকলকে রাম সেতুর জন্য অনুদান দিতে উৎসাহিত করবেন বলে আশাবাদী অক্ষয়।

একইসঙ্গে তিনি আরো জানিয়েছেন যেহেতু অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে তাই আমাদের প্রত্যেককে বানর কিংবা কাঠবিড়ালি হয়ে অযোধ্যা রাম মন্দির নির্মাণের জন্য আর্থিক অনুদানের ব্যবস্থা করতে হবে।তার অনুরোধে যেসকল এরা খাবেন এবং এই রাম মন্দির নির্মাণের কাজে এগিয়ে আসবেন এমনটা আশা প্রকাশ করেছেন অক্ষয় কুমার। প্রসঙ্গত রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ইতিমধ্যেই দেশের 52 লক্ষ 5 হাজার গ্রাম থেকে অর্থ সংগ্রহ করার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এবং যে অর্থ সংগ্রহ হবে সেই অর্থ তুলে দেওয়া হবে রাম মন্দির নির্মাণ কার্যে।

এক্ষেত্রে উল্লেখ্য শুধুমাত্র পাথর দিয়েই তৈরি হবে রাম মন্দির এমনটাই প্রথম থেকে ঘোষণা করা হয়েছে।তবে এখনও অবধি তদন্ত চলছে এবং পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে যাতে কোনোভাবেই ভিত্তিপ্রস্তরে গলতি না থাকে। তার জন্য ইতিমধ্যেই প্রত্নতাত্ত্বিকেরা রাম মন্দির সংলগ্ন এলাকার মাটির পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করে দিয়েছেন।

One thought on “রাম মন্দির নির্মাণের জন্য চাঁদা দিন,আবেদন জানালেন অক্ষয় কুমার

Leave a Reply