ইজরায়েলের জাতীয় সঙ্গীত ‘চুরি’ করেই নাকি গান তৈরি করেছেন অনু মালিক! টোকিও অলিম্পিক এর মঞ্চে ইজরায়েলের জাতীয় সংগীত বাজতেই ধরা পড়ল

এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো কটাক্ষের মুখোমুখি হতে হলো জনপ্রিয় বলিউডের  সুরকার অনু মালিক কে। টোকিও অলিম্পিক এর মঞ্চে ইজরায়েলের জাতীয় সংগীত বাজেটেই রীতিমতো রে রে করে তেড়ে উঠল সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা এবং সুরকার অনু মালিকের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ উঠল।

 চলতি বছরের টোকিও অলিম্পিক এর মঞ্চে আর্টিস্টিক জিমন্যাস্ট থেকে সোনা জিতেছেন ঈশ্রায়েলি তারকা  আরতেম দোলপিয়াত তিনি যখন পুরস্কার নিতে ওঠেন তখনই ইজরায়েলের জাতীয় সংগীত বাজানো হয় আর ঠিক সেই সময় দর্শকদের মনে পড়ে যায় দিলজ্বলে সিনেমার বিখ্যাত গান মেরা মুল্ক মেরা দেশ।

 1996 সালে হ্যারি বাওয়েজা পরিচালিত দিলজ্বলে সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন অজয় দেবগন সোনালী বেন্দ্রে অমরেশপুরি, মধু এবং অন্যান্য রা আর এই সিনেমায় মোট আটটি গান ছিল। সেই আটটি গানের সুর দিয়েছিলেন অনু মালিক এবং এখানে দুটি ভাষায় গান গাওয়া হয়েছিল একটি গিয়েছিলেন কবিতা কৃষ্ণমূর্তি এবং অন্যটিতে ছিলেন কুমার শানু এবং উদিত নারায়ন।

 তাই এবার ইজরায়েলের জাতীয় সংগীত বাজেটেই সকলে সেই সঙ্গীতের সঙ্গে মেরা মুল্ক মেরা দেশ এই গানটির সুরের মিল পান আর তাই সঙ্গে সঙ্গে নেট দুনিয়ায় ঝাঁপিয়ে পড়েন নেতা গ্রীকরা কেউ কেউ মন্তব্য করে লিখেন,অনু মালিক ইজরায়েলের জাতীয় সংগীত কেউ চুরি করতে ছাড়লেন না তবে ইন্টারনেট এবং সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে বলেই তা জানতে পারলাম আবার কেউ কেউ তাকে ক্ষমা না করার অনুরোধ জানিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।

কেউ কেউ আবার শুরু চুরি করার ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর অনু মালিক এর অবস্থা কেমন হতে পারে সেই সংক্রান্ত একটি মিম ও লিখেছেন।

কেউ কেউ আবার বলিউডের সঙ্গীতপ্রেমী ও দর্শকদের ঠকানোর অভিযোগের তীর বিঁধেছেন অনু মালিকের বিরুদ্ধে। তবে এই প্রথমবার নয় এর আগেও অনেকবার সপর ও তথ্য চুরির অভিযোগ উঠেছিল ৪০ বছরের কেরিয়ারে। তা সত্ত্বেও এখনও অবধি পরিচালক ও সুরকার অনু মালিকের কাজ একই ভাবে জনপ্রিয় বলিউডে।

One thought on “ইজরায়েলের জাতীয় সঙ্গীত ‘চুরি’ করেই নাকি গান তৈরি করেছেন অনু মালিক! টোকিও অলিম্পিক এর মঞ্চে ইজরায়েলের জাতীয় সংগীত বাজতেই ধরা পড়ল

Leave a Reply