শীতের মরশুমে পিকনিক করতে যাওয়ার কয়েকটি সেরা ঠিকানা

  • 3.3K
    Shares

শীত মানেই ঘুরতে যাওয়া। চুটিয়ে খাওয়াদাওয়া আর অফুরন্ত আনন্দ। বছর শেষের আমেজে মাতোয়ারা সকলেই। হইচই-নাচগান-পার্টিআর বনভোজনে মেতে ওঠার এটাই উপযু্ক্ত সময়। বেশি দূরে না গিয়েও কলকাতার আশেপাশে বেশ কয়েকটি আকর্ষণীয় পিকনিক স্পট রয়েছে। আপনাদের সবার জন্য রইল সেইসব পিকনিক স্পটের হদিশ।

Source Image https://images.google.co.in

ইছামতী পার্ক –টাকি স্টেশনের অদূরেই রয়েছে আরও একটি পিকনিক স্পট। শুধুমাত্র পিকনিকের জন্যগাছপালা আর জলাশয় ঘেরা এই পার্কটি তৈরি হয়েছে টাকি পুরসভার উদ্যোগে। পরিবার নিয়েবনভোজনের ইচ্ছে থাকলে আদর্শ এই পার্ক।

মঙ্গলপাণ্ডে ঘাট ও গান্ধী ঘাট –  কলকাতা থেকে মাত্র ২৩ কিলোমিটার দূরে ব্যারাকপুরে রয়েছে এই আকর্ষণীয় জায়গা দুটি।

মেঠো গাঁ – নামটা শুনলেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে সবুজ মাঠ, মাটির রাস্তা, পুকুর। কলকাতার অদূরে মাত্র ২৫ কিলোমিটার দূরেই মেঠো গাঁ। যারা গ্রাম ভালোবাসেন তাঁরা কিন্তু একদিন যেতেই পারেন। আর উপভোগ করতে পারেন মাটির রাস্তার গন্ধ।

নীলদীপ গার্ডেন- কলকাতা থেকে মাত্র ৩০ কিমি দূরে বারুইপুরে অবস্থিত নীলদীপ পিকনিকগার্ডেন। গাছগাছালি, ফুল, ফল, পাখি প্রকৃতিরকোলে অপরূপ সৌন্দর্য নিয়ে হাজির নীলদীপ। বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের সঙ্গে সময়কাটানোর জন্য আদর্শ এই বাগান।


Source Image https://images.google.co.in

ডায়মন্ডহারবার – কলকাতা থেকে খানিকটা দূরে যদি পিকনিক যেতে চান তাহলে যেতেই পারেন ডায়মন্ডহারবারে। অপরূপ সৌন্দর্যে আপনার মন ভরবেই।

ফালতা –দক্ষিণ ২৪ পরগনার হুগলি নদীর ধারে ফালতা খুবই জনপ্রিয় পিকনিক স্পট।কলকাতা থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে এই স্পট। ফালতরা অন্যতম আকর্ষণ আচার্যজগদীশচন্দ্র বসুর একটি বাগানবাড়ি।

চান্দুর – বনছাড়া কি আর বনভোজন জমে?  কাজেইজল-জঙ্গল-আর কষা মাংস পিকনিকের অন্যতম অঙ্গ। হুগলির শেষ প্রান্তে আরামবাগ থেকে চারকিলোমিটার দূরে অবস্থিত চান্দুর। শাল–সেগুন-সোনাঝুরির জঙ্গলের পাশ দিয়ে বয়েচলেছে দ্বারকেশ্বর নদী। চান্দুরের এই জঙ্গলেই মিলবে পিকনিকের মজা।


Source Image https://images.google.co.in

ওয়ান্ডারল্যান্ডপার্ক – হাওড়া থেকে ৩৭ কিলোমিটার দূরে চন্দননগরে ১৩৫ বিঘা জমির উপর গড়েউঠেছে ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্ক। অন্য নাম এমডিএ পার্ক।


Source Image https://images.google.co.in

দেউলটি – রূপনারায়ণ নদেরওপর অবস্থিত এই পিকনিক স্পটটিও পিকনিকের জন্য একেবারে আদর্শ। চুটিয়ে খাওযাদাওয়ারপর আপনারা ঘুরে আসতে পারেন শরত্চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি।


Source Image https://images.google.co.in

মুকুটমণিপুর –  যাঁরা পাহাড় ভালোবাসেন, তাঁদের ঘুরতে যাওয়ার জন্য একেবারে আদর্শ এই স্থানটি।

error: Content is protected !!