প্রাণের বাঁচতে কোনক্রমে কাবুল এয়ারপোর্টে ঢুকছিলেন, সেই সময়ে তালিবান মারলো গুলি, ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

আফগানিস্তান এবার তালিবানদের দখলে যদিও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাত রয়েছে এর পিছনে এমনটাই গোটা বিশ্বের কাছে চিরপরিচিত বাক্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুধু তাই নয় চীন পাকিস্তান দুটি দেশ একে সমর্থন করেছে কিন্তু তালিবানদের অধীনে আসছে আফগানিস্থান ঘোষণা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই কাবুল ছেড়ে পালাতে চাইছে সকলে। এমনকি অনেকে কাবুল ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন। নিজের দেশ ছেড়ে প্রাণের দায়ে অন্যত্র পালাতে গিয়ে ইতিমধ্যেই উড়ন্ত বিমান থেকে পড়ে মারা গিয়েছেন অনেকে আবার কেউ কেউ বাদুড় ধরার মতো উড়ন্ত বিমানে চলেছেন অজানা ঠিকানায়। এই এক সপ্তাহ ধরে রক্তাক্ত কাবুলের বিভিন্ন চিত্র বিশ্ববাসীর কাছে অতি পরিচিত হয়েছে।

ঠিক সেভাবেই এবার এটি নিউজ এজেন্সি তরফে একটি ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে যেখানে দেখা গিয়েছে এক সাধারন নাগরিক তিনি কাবুল এয়ারপোর্টে ঢুকছিলেন।বিষয়টি চোখে পড়তেই ওই ব্যক্তিকে তাক করে ঘুরে শুলেন এক তালিবানি যোদ্ধা তাই কাবুল বিমানবন্দরে এই ভিডিওটি মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় হয়ে গিয়েছে ভাইরাল যা দেখে কার্যত চমকে উঠেছে বিশ্ববাসী।ওই নিউজ এজেন্সির তরফে ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে তাতে দেখা গিয়েছে এক ব্যক্তি কাবুল বিমানবন্দরে দেওয়াল বেয়ে বিমানবন্দরে লাফিয়ে ঢোকার চেষ্টা করছেন ।

এবং ভিডিও ক্লিপটি শেয়ার করে এজেন্সি লিখেছে, “তালিবান যোদ্ধা গুলি ছুড়েছে একটা মানুষের দিকে সে আসলে ভেবেছিল তালিবান আগের সরকারের মত ব্যবহার করবে যেখানে তালিবানরা অন্য ভাষায় কথা বলে”। প্রসঙ্গত মাত্র কয়েকদিন আগে তালিবানরা কাবুল বিমানবন্দরে ক্ষমতা দখলের লড়াই চালিয়ে ছিল এবং ক্ষমতা দখল করতেই সেখানকার বাসিন্দারা দেশ ছাড়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে।

আর সেভাবে একটি ভিডিও দেখা গিয়েছিল যেখানে কয়েকজন ব্যক্তি উড়ন্ত বিমানে চাকা ধরে দেশ থেকে পালানোর চেষ্টা করেছিল এমনকি অনেকে বিমান ছেড়ে দেওয়ার পরেও বিমানে ওঠার চেষ্টা করেছে ঠিক সেভাবেই অনেকে মৃত্যুবরণ করেছে কিন্তু তাকেও কেও আবার মনে করছেন তালিবানদের ক্ষমতায় থাকার থেকে মৃত্যু বরণে অনেক ভালো।

One thought on “প্রাণের বাঁচতে কোনক্রমে কাবুল এয়ারপোর্টে ঢুকছিলেন, সেই সময়ে তালিবান মারলো গুলি, ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

Leave a Reply