আপাদমস্তক ঢেকে রেখে রাম্পে হেঁটে মডেলিং এর সংজ্ঞা বদলাচ্ছেন হালিমা

রাম্প মানেই খোলামেলা পোশাক এই শব্দটির সঙ্গে আমরা বিশেষভাবে পরিচিত, যদিও খোলামেলা পোশাক ছাড়াও শাড়ি পড়ে হাটা যায় কিন্তু তার মধ্যে আধুনিকতা থাকে একই সঙ্গে থাকে অনেক নতুনত্ব। কিন্তু হিজাব পড়ে যদি কেউ পেয়ে থাকেন তাহলে আমি আপনি সকলেই নিশ্চয়ই অবাক হব।তবে খোলামেলা পোশাক ছাড়া হিজাব পড়ে এবং আপাদমস্তক ঢেকে সাহসিকতার পরিচয় দেবার পাশাপাশি মডেলিং এর সংজ্ঞা বদলাচ্ছেন হালিমা আদেন। ভাবতে বড় অবাক লাগে কিন্তু বর্তমানে বিশ্বের হিজাব পরা প্রথম সুপারমডেল হালিমা।যিনি ভেঙে দিয়েছেন খোলামেলা পোশাকের সমর্থক মডেল এই ভাবনাটি।

তবে শুধুমাত্র হাত পায়ের তালু অনাবৃত রেখে গোটা শরীর থেকে এমনভাবে হাঁটছেন তিনি যা দেখে অবাক হয়েছেন বিশ্বের নামজাদা মডেলরাও যদিও তাকে কম হেনস্থার মুখোমুখি হতে হয়নি কিন্তু সেই সমস্ত হেনস্থাকে জয় করে আজ তিনি বিশ্বের সুপার মডেলের খ্যাতি পেয়েছেন। যদিও মাঝখানে কেটে গিয়েছে প্রায় চার বছর কারণ 2016 সালে প্রথম মাথায় হিজাব এবং গায়ে বুরকিনি চাপিয়ে মিস মিনেসোটা ইউএসএ প্রতিযোগিতায় ছিলেন হালিমা এবং তখনই বিশ্বের সমস্ত স্তরের মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন। আর সেই প্রথমবার খোলামেলা পোশাকে র্যাম্পে হাজার ভিড়ে এক হিজাব পরা মহিলাটা কার্যত সকলকে অবাক করেছিল। আসলে তিনি চান মডেলিংয়ের সঙ্গা বদলাতে।

instagram.com/halima

তবে কে এই হালিমা এবার জেনে নেওয়া যাক, হালিমার জন্ম হয়েছিল কেনিয়ার শরণার্থী শিবিরে যার মা-বাবা দুজনেই ছিলেন সোমালিয়ার নাগরিক। এবং ছয় বছর বয়সে বাবা মায়ের হাত ধরে আমেরিকায় চলে এসেছিলেন তারপর শুরু হয় তার পড়াশোনা জীবন।

instagram.com/halima

স্কুল কলেজ পাশ করার পর তিনি 2016 সালে মিনেসোটা ইউএসএ মডেল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন আর সেই প্রথম আত্মপ্রকাশ এর মধ্য দিয়েই তিনি সকলের নজর কেড়েছিলেন আর এরপরই তিনি একটি সংস্থায় তিন বছরের জন্য নিযুক্ত হয়েছিলেন।

instagram.com/halima

একইসঙ্গে কখনো নিউইয়র্ক ফ্যাশন উইক কখনো মিলান ফ্যাশন উইক আবার কখনো কোনো আন্তর্জাতিক স্তরে ম্যাগাজিনের জন্য ফটোশুটে দাগ পেয়েছিলেন এই হালিমা।আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি 2018 সালে ইউনিসেফের সঙ্গে শিশুদের অধিকার নিয়ে তিনি কাজ শুরু করেন এমনকি ইউনিসেফ এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

তবে ততদিন অবধি কিন্তু বিশ্বের কাছে সেভাবে পরিচিতি পাননি কিন্তু গত বছর তাঁর ইনস্টাগ্রামে একটি স্টরি গোটা বিশ্বকে চমকে দিয়েছিল এবং মডেলিং দুনিয়ায় এক আলোড়ন তুলেছিল যেখানে হালিমা বলতে চেয়ে ছিলেন, বারবার তিনি মডেলিং ইন্ড্রাস্ট্রি মানসিকতা বদলাতে চেয়েছিল কিন্তু হেনস্থা হতে হয়েছিল, আসলে তার বক্তব্য ছিল মডেলিং মানে নতুন কিছু কে গ্রহণ করা কিন্তু কোনো কিছুর সঙ্গে আপস করা নয়।

instagram.com/halima

তাই তিনি যাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন সেভাবেই মডেলিং করতে পারেন।এক কথায় বলতে গেলে যে সমস্ত মহিলারা খোলামেলা পোশাকের জন্য মডেলিং দুনিয়ায় আসতে পারছেন না তাদের জন্য প্রথম প্রদর্শক হয়ে উঠতে চেয়েছিলেন এই হালিমা।কিন্তু আত্মবিশ্বাসী হয়েও মানসিকতা হয়তো বদলাতে পারেন নি তবে এমপি হেঁটে যাওয়ার লড়াই আজও তিনি বজায় রেখেছেন।

One thought on “আপাদমস্তক ঢেকে রেখে রাম্পে হেঁটে মডেলিং এর সংজ্ঞা বদলাচ্ছেন হালিমা

Leave a Reply