কোভিশিল্ড নিয়ে ‘ম্যাগনেট মানে’ পরিণত হওয়ার দাবী! লোহার জিনিস আটকে যাচ্ছে গায়ে! ভাইরাল ভিডিও ছড়ালো উত্তেজনা

সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছুদিন আগেই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিলো, যেখানে দেখা যাচ্ছিলো যে, একজনের বাড়ির ঠাকুর ঘরে একটি ভয়ঙ্কর সাপ ঠাকুর ঘরে ঢুকে পড়েছে আর সেই সাপটিকে ঘর থেকে বাইরে বের করে আনতেই বাড়ির সকল লোক হিমশিম খাচ্ছেন। সাপটি বিদ্যুৎ গতিতে ঠাকুর ঘরের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত ছুটে বেড়াচ্ছে এবং ঠাকুর ঘরের ফটো সিংহাসন থেকে শুরু করে সবকিছুই লন্ডভন্ড করে দিয়েছে। পঞ্চপ্রদীপ ও উল্টে দিয়েছে। পরিবারের প্রতিটি মানুষ ঠাকুরের নাম জপতে শুরু করেছেন এর‌ই মধ্যে।

আবার করোনা আবহে কিছুদিন আগে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল যেখানে দেখা যাচ্ছিল যে, কোভিড ওয়ার্ডে সকলের উৎসাহ ও আনন্দ বজায় রাখতে একজন নার্স পিপিই কিট পরে গানের সাথে সমান তালে নাচ করে যাচ্ছেন। এছাড়া একজন বয়স্ক ভদ্রলোক তুলসী পাতা দেওয়া একটি অভিনব পদ্ধতির মাস্ক পরে ভাইরাল হয়ে গিয়েছিলেন। সম্প্রতি যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সেটিও অনেকটাই করোনা কেন্দ্রিক।

কোভিড আবহে প্রত্যেকেই ভ্যাকসিন নিচ্ছেন, সম্প্রতি কোভিশিল্ডের দুটি টীকা নেওয়ার পর মহারাষ্ট্রের নাসিকের একব্যক্তি দাবি করেছেন যে টিকা নেওয়া হাতে নাকি চুম্বকীয় ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে। যে কারণে স্টিলের হাতা, চামচ, কয়েন সবই নাকি টিকা নেওয়া হাতে আটকে যাচ্ছে। তার হাতে স্টিলের বিভিন্ন জিনিস আটকে পড়ার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন তিনি।

৭১ বছরের ওই ব্যক্তির নাম অরবিন্দ সোনার। নাসিকের শিবাজী চক এলাকার বাসিন্দা ঐ ব্যক্তির ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায় যে তার ডান হাতে স্টিলের খুন্তি, কয়েন, সবই আটকে রয়েছে। নেটাগরিকের কেউ কেউ কমেন্ট করে লিখেছেন,“কোভিশিল্ড নেওয়ার ফল” এই প্রসঙ্গে প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো একটি টুইট করে জানান,যে টিকা নিয়ে হাতে চুম্বকীয় ক্ষেত্র তৈরি হওয়ার দাবি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। তবে যাই হোক সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও।

One thought on “কোভিশিল্ড নিয়ে ‘ম্যাগনেট মানে’ পরিণত হওয়ার দাবী! লোহার জিনিস আটকে যাচ্ছে গায়ে! ভাইরাল ভিডিও ছড়ালো উত্তেজনা

error: Content is protected !!