মঙ্গলে মানুষ নিয়ে যাওয়ার জন্য তৈরি মহাকাশযানে বিস্ফোরণ, হতাশ বিজ্ঞানীরা! দেখুন ভিডিও

মঙ্গলে প্রাণের সন্ধান খুঁজতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন বিজ্ঞানীরা তাই দীর্ঘদিনের গবেষণার পর অবশেষে সাফল্য এসেও যেন আসছে না আর উনবিংশ শতাব্দী থেকে বিজ্ঞানীরা যে গবেষণা শুরু করেছেন তা এখনও অবধি অব্যাহত।নাচের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়েছে যেটি আগামী বছরের মধ্যে মঙ্গল গ্রহে প্রাণের সন্ধান করবে।এসবের বাইরে মঙ্গলে মানুষ পাঠানোর তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা আর তাইতো মানুষ পাঠানোর জন্য একটি রকেট তৈরি হয়ে গিয়েছিল।

স্পেস এক্স রকেট আগামী 6 বছরের মধ্যে মঙ্গল গ্রহের মানুষ পৌঁছে দেওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করেছিল কিন্তু হঠাৎই পরীক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহনের সময় বিস্ফোরণ ঘটে এবং সেই স্পেস এক্স রকেটের বিস্ফোরণের দৃশ্য ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। তিনটি ইঞ্জিন নিয়ে এই প্রশ্নটাই রকেট ইন টেক্সাস থেকে মহাকাশে পাড়ি দিয়েছিল কিন্তু মাত্র 13 কিলোমিটার যাত্রাপথের পরেই হঠাৎ পৃথিবীতে পদার্পণ করার সময় বিস্ফোরণ ঘটে এবং বিস্ফোরণ ঘটে বিপত্তি।জানি ইতিমধ্যেই হতাশা প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা।

এক্ষেত্রে উল্লেখ্য এই স্পেস এক্স রকেটের উদ্দেশ্য ছিল মানুষকে মঙ্গলে এবং ছাদে পৌঁছে দেওয়া।তবে এখানেই কিন্তু তার ক্ষমতা সীমাবদ্ধ নয় এর পাশাপাশি রকেট এর সাহায্যে মঙ্গল চাঁদে 100 টন কার্গো নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।তবে হঠাৎ করেই বিস্ফোরণের পর যে সংস্থা এই রকেট তৈরি করেছিলেন সেই সংস্থার প্রধান এলেন মাস্ক বানিয়েছেন এই স্পেস এক্স রকেট পরীক্ষা মূলক ব্যবস্থা থেকে যে তথ্য সংগ্রহ করতে চেয়েছিল তা করতে পেরেছে এবং তিনি এই বিষয়টিকে সফল বলে গণ্য করেছেন।

পাশাপাশি তিনি ভীষণ আত্মবিশ্বাসী এমনটাই জানিয়েছেন।একই সঙ্গে তার বক্তব্য এই রকেট আগামী চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে মহাকাশে পাড়ি দেবে মানুষ নিয়ে। প্রসঙ্গত এই স্পেস এক্স রকেট তৈরি করতে নাসা 135 মিলিয়ন ডলার আর্থিক সাহায্য দিয়েছে।

One thought on “মঙ্গলে মানুষ নিয়ে যাওয়ার জন্য তৈরি মহাকাশযানে বিস্ফোরণ, হতাশ বিজ্ঞানীরা! দেখুন ভিডিও

Leave a Reply