ছুটির দিনেই ভাসতে পারে কলকাতা, ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

পশ্চিমবঙ্গ 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক: আবারও প্রবল বর্ষণে ভাসতে পারে মহানগরী সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গ। এবারও নেপথ্যে ঘূর্ণিঝড়। তবে কয়েকদিন আগে ঘূর্ণিঝড় মহার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও পাশ্চিমবঙ্গে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়। এবার ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের কবলে পড়তে পারে গোটা রাজ্য। বৃহস্পতিবার ভোর থেকে তার দাপট দেখাতে শুরু করতে পারে বুলবুল। তা জেরে সপ্তাহান্তে গোটা জেলার বিভিন্ন জায়গায় হাল্কা থেকে ভারী বৃষ্টিপাতে সম্ভাবনা রয়েছে।

নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড় তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে। এখনও অবধি নিম্নচাপটি আন্দামান সমুদ্রে অবস্থান করছে। তবে আজ গভীর রাতে নিম্নচাপ ঘূর্নাবর্তের চেহারা নিতে পারে। এবং সেটি বৃহস্পতিবার ভোর থেকে ঘূর্ণিঝড়ের আকার নেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের জেরে গোটা পশ্চিমবঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। একইসঙ্গে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনাও রয়েছে। যদিও কলকাতায় রেশ পড়বে শুক্রবার থেকেই। যদিও ঘুর্ণিঝড় সরাসরি হবে কি না সে বিষয়ে নিশ্চয়তা নেই তবে ভারতের উপকূলীয় রেখা ছুঁয়ে এই সাইক্লোন আছড়ে পড়বে বাংলাদেশ বা মায়ানমারে।

Image Credit- times now

দিল্লী মৌসম ভবন সূত্রের খবর, নিম্নচাপের জেরে পশ্চিম- উত্তর পশ্চিমের দিকে যেতে পারে তাই এই তিনজেলায় বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও ওড়িশা ও বাংলাদেশের দিকে স্থান পরিবর্তনও করতে পারে। তাই উত্তর ২৪ পরগণা, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, মেদিনীপুরের বেশ কিছু জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।এছাড়াও রাজ্যের অন্যান্য জেলায় হাল্কা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে।

অন্যদিকে 8 ভেম্বর তারিখে 145 কিমি বেগে উপকূলবর্তী এলাকায় সাইক্লোন আছড়ে পড়তে পারে। তাই মত্স্যজীবিদের সমুদ্রে যাওয়ার ব্যাপারেও নিষেধজ্ঞা জারি করা হয়েছে।একইসঙ্গে জারি হয়েছে সতর্কবার্তাও। উল্লেখ্য, আন্দামান সাগরে নিম্নচাপের জন্য প্রভা পড়েছে বঙ্গে। তাই বুধবার সকাল থেকেই আকাশ প্রায় মেঘাচ্ছন্নই ছিল। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোদ প্রায় দেখাই যায়নি। তাই মেঘের জন্য সপ্তাহের শেষে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

Loading...
error: Content is protected !!