করোণা আক্রান্ত বাবাকে জল দিতে চাইছে মেয়ে কিন্তু বাধা দিচ্ছে মা, মর্মান্তিক এই ভিডিও গোটা দেশজুড়ে তোলপাড় করে তুলেছে

বিশ্বজুড়ে একটাই ত্রাস তাহল করোনাভাইরাস আর যার জেরে গত বছর থেকে এখনও অবধি লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন কত মানুষ তার প্রিয়জন হারিয়েছেন কত মানুষ পরিবারকে হারিয়েছেন কেউ আবার সহায়-সম্বলহীন হয়ে পড়েছেন।একদিকে করোনাভাইরাস যেমন মানুষকে গ্রাস করেছে ঠিক তেমনি করোনাভাইরাস এর জেরে যেভাবে লকডাউন হয়েছে তাতে মানুষ রীতিমতো বিধ্বস্ত কিন্তু এই ভাইরাসের জেরে গোটা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের যেভাবে নানান ধরনের মর্মান্তিক ঘটনা ঘটছে তা সত্যিই চোখের জল ফেলে দেওয়ার মতোই।এমনই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে আক্রান্ত ব্যক্তির কাছে যাওয়া মানেই ভয়ানক বিপদ ডেকে আনা এবং সেই ব্যক্তির সংস্পর্শে যারা থাকবে না তাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা থেকে যায় এমনকি কখনো কখনো অবধারিত মৃত্যু।

এই মারণ ভাইরাস মা-বাবা বা পরিবারের সদস্যদের চেনে না তাইতো কখনো মৃত্যু হলে মৃত ব্যক্তির মুখাগ্নি করা থেকে শেষকৃত্য করা কোনটাই সম্ভব হচ্ছে না। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কোথাও করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু আবার কোথাও কোথাও বিভিন্ন জায়গায় পরিত্যক্ত অঞ্চলে পোড়ানো হচ্ছে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের দেহ আবার কোথাও দেখা যাচ্ছে শ্মশানের চুল্লি বন্ধ। কখন কোন মানুষ যে কিভাবে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন তা বোঝা যায় না কিন্তু তার পরিণতি কতটা মর্মান্তিক হতে পারে তা আমরা টিভির পর্দায় বা সংবাদ মাধ্যমের মধ্য দিয়ে দেখতে পাচ্ছি।

অনেক সময় দেখা যাচ্ছে অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যেতে নিয়ে যেতে হয়ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে কিন্তু সেইখান থেকে রোগীর পরিবারের সদস্যদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে তারপর শেষকৃত্য করতে দেওয়া হচ্ছে না কিন্তু এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনই একটি দৃশ্য ভাইরাল হয়েছে জানি হাতি বেদনাদায়ক এবং দেখামাত্রই সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে এক বাবা করোনার সঙ্গে যুদ্ধে পরাজয় স্বীকার করতে চলেছেন আর তাই তিনি ঘর থেকে বাইরে বেরিয়ে মাটিতে শুয়ে শ্বাসকষ্ট নিয়ে কাতরাচ্ছেন সেই মুহূর্তে তারা নিজের মেয়ে চাইছে বাবার মুখ একটু জল দিতে কিন্তু বাধা দিচ্ছেন মা।

মা-মেয়েকে সরে যেতে বলছেন এবং তিনি জল দেবেন আসলে সেই মা জানেন তার স্বামী আর কোনোদিনই ফিরবেন না কিন্তু তার মেয়েটিকে এখনো অনেকটা পথ চলতে হবে তাই তিনি বাধা দিচ্ছেন আর জানা গিয়েছে ভিডিওটি অন্ধপ্রদেশের কোন একটি গ্রামের আর সেই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হওয়া মাত্রই মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে।

ভিডিও দেখে অনেকেই বলছেন করো না এমনই এক মরণোত্তর ভাইরাস যে বোঝেনা কোন নাপিত আর সম্পর্ক এবং তার কাছে প্রাধান্য পায় না যেকোনো সম্পর্কের এই বরণ সেই সম্পর্কের থেকে বৃত্ত তার কাছে অনেক বেশি শ্রেয়।

error: Content is protected !!