অ্যাম্বুলেন্স যাওয়ার রাস্তা নেই, ঝুড়িতে গর্ভবতীকে বসিয়ে হাসপাতাল মুখী পরিবারের সদস্যরা

  • 179
    Shares

আমাদের দেশে এখনও এমন অনেক প্রত্যন্ত জায়গা আছে যে সমস্ত জায়গায় এম্বুলেন্স পৌঁছানো সহজ হয়নি অর্থাৎ সেখানে এখন অব্দি চিকিৎসার জন্য মানুষকে হাঁটাহাঁটি করে হাসপাতাল অবধি পৌঁছতে হয় । এমন অনেক সময় দেখা গিয়েছে গর্ভবতী মহিলাদের সকলে পাতাল তোলা করে আধি তুলে নিয়ে হাসপাতালের দিকে যাচ্ছেন গ্রামবাসীরা ঠিক তেমনি এবার আরও একটি বিরল নজির আমাদের চোখের সামনে ধরা দিল। সূর্গুজার কাদনাই গ্রাম যেখানে রাস্তাঘাট এতটাই খারাপ যে এম্বুলেন্স অব্দি পৌঁছানোর কোন অসুবিধা নেই আর তাইতো এক গর্ভবতী মহিলাকে হাসপাতাল অব্দি পৌঁছে দিতে একমাত্র ভরসা ঝুড়ি

আর সেই ঝুরি করে তাই গর্ভবতী মহিলাকে হাসপাতালে পৌঁছে দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন এ পরিবারের সদস্যরা এবং গ্রামবাসীরা। মাজিক মাধ্যমে যে দৃশ্য দেখা গিয়েছে তাতে একটি ঝুড়ির মধ্যে বসে রয়েছেন এক গর্ভবতী মহিলা দুটি লাঠিকে ক্রস করে ব্যালেন্স করা হয়েছে এবং সেই লাঠি দুটিকে চারজন মানুষ ধরে ধরে নিয়ে যাচ্ছেন একটি খরস্রোতা নদীর ওপর দিয়ে।

গ্রামের এমন বেহাল দশার কারণ জানতে গ্রামের কালেক্টর বললেন এই সমস্ত জায়গায় মানুষদের হাসপাতালে পৌঁছে দিতে ছোট ছোট গাড়ির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। যদিও ঠিক কবে পরিষেবা চালু হবে তা এখনো কেউই নিশ্চিত নন। যদিও শুধুমাত্র এই গ্রামটি নয় অনেক অনুন্নত জায়গা আছে যেখানে চিকিৎসার জন্য মানুষকে নিয়ে যেতে গিয়ে সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় গ্রামবাসীদের।

তবে ঝুড়ির মধ্যে করে এভাবে একজন গর্ভবতী নারীকে যেভাবে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা দেখে সকলেই হতবাক হয়েছেন, সেই ঝুড়ির মধ্যে একজন গর্ভবতী মহিলা ছাড়াও একটি নবপ্রজন্মের প্রাণ রয়েছে তাই যথেষ্ট ঝুঁকিপূর্ণ আর এই ছবি দেখে অনেকেরই চোখে জল এসেছে।

One thought on “অ্যাম্বুলেন্স যাওয়ার রাস্তা নেই, ঝুড়িতে গর্ভবতীকে বসিয়ে হাসপাতাল মুখী পরিবারের সদস্যরা

error: Content is protected !!