শনিবার বুলবুল-এর তাণ্ডবে কলকাতায় ভয়াবহ ক্ষতির সম্ভাবনা, পরিস্থিতি মোকাবিলায় মাঠে নামল প্রশাসন

পশ্চিমবঙ্গ 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমশই শক্তিশালী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল৷ রাজ্যে আগামী কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আসে পড়তে পারে তাই শনিবার গোটা রাজ্য জুড়ে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে, এমনটাই নির্দেশিকা জারি হয়েছে নবান্নের তরফ থেকে৷ তাই পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য কলকাতা পুরসভাকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম৷ যুদ্ধকালীন তত্পরতায় পরিস্থিতি মোকাবিলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে একই সঙ্গে কলকাতা সহ সাতটি জেলায় স্কুল ছুটি দেওয়া হয়েছে৷

যদিও নিম্নচাপ ছিল কিন্তু শেষ উপগ্রহ চিত্রের পর্যবেক্ষণ বলছে ক্রমশই শক্তি বাড়াচ্ছে বুলবুল আর মধ্যরাতেই তা অভিমুখ বদল করে বাংলাদেশের ওপর আছরে পড়তে পারে৷ তাই ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলা করার জন্য রাজ্য প্রশাসনের তরফ থেকে উপকূলের জেলাগুলিতে বাড়তি সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷ বিশেষ করে সুন্দরবন লাগোয়া বেশ কয়েকটি জায়গা যেমন সন্দেশখালি হিঙ্গলগঞ্জ হাসনাবাদের ম সজীবীদের মাছ ধরার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে৷ এমনকি নদীর তীরে বসবাসকারী পরিবারগুলিকে ত্রাণ শিবিরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷

Image Credit- the financial express

পাশাপাশি মাইকিং করে সমস্ত ফেরিঘাটে সতর্কতা বার্তা জারি করা হয়েছে এবং বাড়তি পুলিশ ও উপকূল রক্ষী বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে৷ অন্যদিকে সল্টলেকে সেচ দফতরের কন্ট্রোল রুম থেকেও ঘণ্টায় ঘণ্টায় পরিস্থিতি নজরে রাখা হচ্ছে৷ অন্যদিকে আবহ দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী বুলবুলের প্রভাবে শনিবার সারা দিন ভোর প্রবল ঝড়ের সঙ্গে বৃষ্টি চলবে৷ বৃষ্টির দাপট অব্যাহত থাকবে রবিবার সকাল অবধি৷

বুলবুলের প্রভাবেই কলকাতা ছাড়াও হাওড়া হুগলি ও নদিয়াতেও বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে৷ প্রবল ঝড়ের দাপটে যে কোনও ক্ষয় ক্ষতি এড়াতে সতর্কতা হিসেবে উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা হাওড়া কলকাতা পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রাম জেলার প্রাথমিক স্কুল আগামী কাল থেকে ছুটি থাকবে 15 নভেম্বর অবধি৷

Loading...
error: Content is protected !!