কাল থেকে দেশে চালু হতে চলেছে প্রথম বেসরকারি ট্রেন

পশ্চিমবঙ্গ 24×7 ডিজিটাল ডেস্ক: রেল দফতরের আয় বাড়াতে, এবং গ্রাহকদের উন্নতমানের পরিষেবা দিতে মোদী সরকার প্রথম জমানা থেকেই রেল দফতরকে বেসরকারিকরণের উদ্যোগ নিয়েছিলেন৷ দ্বিতীয় বার লোকসভা নির্বাচনে আবারও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র চার মাসের মধ্যে ভারতীয় রেলকে বেসরকারিকরণের দিকে আরও একধাপ এগিয়ে গেল মোদি সরকার৷ তেজস এক্সপ্রেস কে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দিয়েছে নরেন্দ্র মোদী সরকার৷ তাই আগামী শুক্রবার থেকেই দিল্লি ও লখনউ রুটে চালু হবে প্রথম বেসরকারি ট্রেনে৷ যাত্রা শুরু করবে তেজস এক্সপ্রেস৷ যদিও ইতিমধ্যেই ট্রেনের উদ্বোধন করেছেন যোগী আদিত্যনাথ৷ কিন্তু এ বার পাকাপাকি ভাবেই ট্রেন চালু হতে চলেছে 4 অক্টোবর তারিখ থেকে৷

Image Source – https://www.deccanchronicle.com/

কয়েক মাস আগেই তেজস এক্সপ্রেস কে বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ার জন্য দরপত্র ডেকেছিল কেন্দ্রীয় সরকার, সেই দরপত্র গ্রহণ করেছে আইআরসিটিসি৷ তাই এখন থেকেই তেজস এক্সপ্রেসের সমস্ত দায়ভার নেবে সংস্থাটি৷ তবে বেসরকারিকরণ হওয়ার পর তেজস এক্সপ্রেসের ভোল বদল করে দিয়েছে আইআরসিটিসি৷ পরিষেবা যেমন উন্নত তেমনই পুরো এক্সপ্রেস থেকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করা হয়েছে, পাশাপাশি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে ট্রেনের অন্দর সাজানো হয়েছে৷ এক্সিকিউটিভ চেয়ার কার থেকে শুরু করে বিভিন্ন উন্নত পরিষেবা রয়েছে তেজস এক্সপ্রেসের মধ্যে৷

Image Credit- news18.com

উন্নত পরিষেবার জন্য এক্সপ্রেসে চড়ার টিকিটের দামও বেশ খানিকটা বেশি৷ এসি কারের ভাড়া 1280 টাকা এবং এক্সিকিউটিভ চেয়ার কারের ভাড়া 2450 টাকা৷ ট্রেনটির উন্নত পরিষেবাগুলির মধ্যে রয়েছে যাত্রীদের ক্ষতিপূরণ এবং বিমা৷ এ ছাড়াও বিমানের মতো বিমান সেবিকা ও মিলবে এই ট্রেনে৷ এমনকি যাত্রীদের বাড়ি থেকে লাগেজ নিয়ে আশা পৌঁছে দেওয়া, বিমান টিকিট ট্যাক্সি বুকিংয়ের মতো একাধিক সুযোগ সুবিধা দেবে ট্রেনটি৷

Loading...

error: Content is protected !!