রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে ভুয়ো ট্যুইটের জের,চাপে পড়ে মুছে দিলেন মহুয়া মৈত্র

  • 191
    Shares

কয়েক মাস আগে সাংবাদিকদের দুই পয়সার সাংবাদিক বলে নিম্নরুচির মন্তব্য করেছিলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র তারপর এবার রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে ভুয়া টুইটার এর জেরে ব্যাপক বিপাকে পড়লেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।কয়েকদিন আগে তিনি একটি টুইট করেছিলেন যেখানে তিনি জানিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ছবি আবরণ উন্মোচন করেছিলেন তা আসলে ভুয়াে। এর পাশাপাশি তিনি আরো দাবি করেছিলেন নেতাজী জন্ম জয়ন্তী ছবি আবরণ উন্মোচন করা হয়েছিল সেটা আসলে গুমনামি ছবিতে অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের।

আর এভাবেই রাষ্টপতির নাম করে একটি ফেক নিউজ সোশ্যাল মিডিয়া ভরিয়ে দেয় না জানিয়ে দেশজুড়ে রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে।এমনিতেই এই তথ্যের পর কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে নেতাজির ওই ছবিটা আসলে তবে খোঁজ খবর না নিয়ে এমন টুইচ করতে বিপাকে পড়েছেন তৃণমূল সাংসদ।তবে বেগতিক বুঝে সঙ্গে সঙ্গে ওই টুইটটি মুছে দিয়েছেন মহুয়া মিত্র কিন্তু তুই স্ক্রিনশট নিয়ে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় শুরু হয়েছে। হঠাৎ কেন এমন মন্তব্য করতে গেলেন জানি কিন্তু প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের মধ্যে তবে এ নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে এখনো অবধি কোনোরকম প্রতিক্রিয়া করতে শোনা যায়নি।

যদিও এই প্রথমবার নয় এর আগেও এক জনপ্রিয় লেখক এর লেখা নিয়েও কম কীর্তি হয়নি ঠিক তারপর কয়েক মাস আগে একটি জনসভার মঞ্চ থেকে সাংবাদিকদের দুই পয়সার সাংবাদিক বলে কুরুচিকর মন্তব্য করেছিলেন মহুয়া মৈত্র যার জেরে বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে মহুয়া মৈত্র কে বয়কট করেন কিন্তু তারপরেও নিজের ভুলের জন্য কোনরকম ক্ষমা চাননি তৃণমূল সাংসদ।

কে এই দুই পয়সার প্রেসকে ভেতরে ডাকে সরাও প্রেসকে এখান থেকে কেন দলের মিটিংয়ে প্রেস দেখো তোমরা এমন প্রশ্ন করে তিনি আরো বলেন কর্মী বৈঠক হচ্ছে আর সবাই টিভিতে মুখ দেখাতে ব্যস্ত আমি দলের সভানেত্রী আমি আপনাদের নির্দেশ দিচ্ছি প্রেসকে সরান।

এই মন্তব্যের পর রীতিমতো চর্চা শুরু হয় সাংবাদিক মহলে একইসঙ্গে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষজন এই ভাষা ব্যবহারের জন্য মহুয়া মৈত্র ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন।

One thought on “রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে ভুয়ো ট্যুইটের জের,চাপে পড়ে মুছে দিলেন মহুয়া মৈত্র

error: Content is protected !!