অনবদ্য! আয়ুর্বেদিক জীবানুনাশক টানেল তৈরি করে নজির গড়ল মেমারি ক্রিস্টাল মডেল স্কুলের টেকনোলজি ক্লাব

  • 97
    Shares

বর্তমানে যেভাবে করোনা আতঙ্ক ছড়িয়েছে তাতে জীবানু নিয়েও নতুন করে মানুষ চিন্তিত। কারণ ভাইরাসের জীবানু যে কখন কিভাবে ঢুকবে তা বোঝা দায়। তাই তো অফিস আদালত সমস্তটাই বন্ধ রাখা হয়েছে। যদিও সাধারণ জীবানুনাশক টানেল অনেক জায়গাতেই রয়েছে কিন্তু তার থেকেও যে সংক্রমন ছড়াব না এমন গ্যারান্টি নেই। তার সঙ্গে আবার মানুষের শরীরে ওই সাধারণ টানেলে ব্যবহৃত সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট বাজে প্রভাব ফেলে। আর তাই সাত পাঁচ ভেবে। সবদিক বিবেচনা করে রাজ্যের দ্বিতীয় আয়ুর্বেদিক জীবানুনাশক টানেল তৈরি করে নজির গড়ল মেমারি ক্রিস্টাল মডেল স্কুল এর টেকনোলজি ক্লাবের কয়েক জন ছাত্র ছাত্রী ও মেন্টররা।

জীবানুনাশক টানেল তৈরি করতে গিয়ে ওই ক্লাবের পড়ুয়া এবং মেন্টররা উদ্ভিজ্জ জীবানুনাশক ব্যবহার করেছেন। যা এককথায় কোনো রকম পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই কাজ করতে সক্ষম। তাই তো কেন্দ্রীয় সরকারের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড টেকনোলজিক্যাল মিউজিয়ামের মতোই মেমারি ক্রিস্টার মডেল স্কুলের পড়ুয়া ও মেন্টররা উদ্ভিজ্জ জীবানুনাশক ব্যবহার করেছেন।এটি আপাতত তাঁদের স্কুলের প্রবেশপথ চত্বরে লাগানো হয়েছে।

যেহেতু করোনা আবহের মধ্যেই স্কুল খোলার ব্যাপারে কথা চলছে তাই কোনো পড়ুয়া বা স্কুলের কেউ এলে ওই টানেল দিয়ে প্রবেশ করলেই তাঁদের শরীরে স্বয়ংক্রিয় ভাবে উদ্ভিজ্জ জীবানুনাশক স্প্রে টি কাজ করবে। সেখানে থাকা উচ্চচাপের এয়ার কম্প্রেসার সকলের শরীরের স্প্রে করে দেবে।  পোশাক জুতো ,স্কুল ব্যাগ সহ টানেলে প্রবেশকারীর সারা শরীরের উপরি অংশ জীবানুনাশ করে দবে এটি।

এপ্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ওই স্কুলে প্রিন্সিপাল শ্রী অরুন কান্তি নন্দী জানিয়েছেন, তাঁদের স্কুলে ছেড়েমেয়েদের পড়াশুনা করার পাশাপাশি বিভিন্ন দিকে মনোযোগী করে তোলার জন্য এক্সট্রাক্যারিকুলাম অ্যাকটিভিটিস রয়েছে। আর সেভাবেই করোনা ভাইরাসের জন্য যাতে ভবিষ্যতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পঠনপাঠন চালানো যায় সে ব্যাপারেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবং সকলকে জীবানু মুক্ত করতে টেকনোলজি ক্লাবের কয়েকজন পড়ুয়া ও মেন্টররা এই অভিনব আবিষ্কার করে ফেলেছেন।