রোনালদোর এক কান্ডে কোকাকোলা ৩৩ হাজার কোটি খোয়ালো!

পর্তুগালের ফুটবলার তারকা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে সকলেই এক নামে চেনেন। আজ অবধি তিনি অনেক রেকর্ড তৈরি করেছেন। কিন্তু গতকাল তার করা একটি কাজে ৩৩ হাজার কোটি টাকা খোয়ালো কোকাকোলা। কী কাজ জানলে অবাক হবেন!

গতকাল রাতে সংবাদ সম্মেলন করতে গিয়ে এমন একটি কাণ্ড ঘটালেন পর্তুগালের অধিনায়ক যা নিয়ে চর্চা সৃষ্টি হল। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এসে কথা শুরু করবার আগেই টেবিল থেকে কোমল পানীয়ের বোতল গুলি সরিয়ে দেন তিনি। টেবিলে থাকা বোতল গুলো খুব বড় এক স্পন্সর ছিলো কোকাকোলা।

স্বাস্থ্য সচেতন রোনালদো মানুষকে কোমল পানীয় নয় শুধু পানি খেতে বলেছেন। আর টেবিল থেকে সরিয়ে দিয়েছেন কোকোকোলাকে। ব্যস অমনি শেয়ারবাজারে কোকোকোলার ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। আর আধঘণ্টার মধ্যেই শেয়ারবাজারে কোকোকোলার দাম চড়চড় করে কমতে শুরু করেছে। এর ফলে ব্র্যান্ড মূল্য ৪০০ কোটি ডলার কমে গিয়েছে অর্থাৎ ৩৩ হাজার ৯১৫ কোটি টাকা কমে গিয়েছে। সামাজিক মাধ্যমে রোনালদোর অনুগামী সংখ্যা ব্যাপক।

ফেসবুক, ইন্সট্রাগ্রাম, টুইটার মিলিয়ে তাকে ৫৩ কোটি মানুষ ফলো করেন। এর মধ্যে ইনস্টাগ্রামেই প্রায় ২৯ কোটি ৮০ লাখ মানুষ তাকে ফলো করেন। স্বাভাবিকভাবেই তার অনুসারীরা তার প্রত্যেকটি পোস্ট তার প্রত্যেকটি ভিডিও ফুটেজ খুব ভালোভাবে লক্ষ্য করেন। ২০১৯ সালের গবেষণায় দেখা যায় যে ইনস্ট্রাগ্রামে পণ্যের দূতিয়ালি বাবদ ৯ লাখ ৭৫ হাজার টাকা আয় করেন রোনালদো। তাই স্বাভাবিক ভাবেই তিনি যখন গতকাল সংবাদ সম্মেলনে কোকাকোলার বোতল দিয়ে রাখেন তখন এর আঁচ যে শেয়ারবাজারে পড়বে তা অনুমান করা গিয়েছিলো।

কিন্তু এতোখানি হারে সেই প্রভাব পড়বে তা অনুমান করা যায়নি।পর্তুগালের ফুটবলার তারকা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে সকলেই এক নামে চেনেন। আজ অবধি তিনি অনেক রেকর্ড তৈরি করেছেন। কিন্তু গতকাল তার করা একটি কাজে ৩৩ হাজার কোটি টাকা খোয়ালো কোকাকোলা। কী কাজ জানলে অবাক হবেন!

গতকাল রাতে সংবাদ সম্মেলন করতে গিয়ে এমন একটি কাণ্ড ঘটালেন পর্তুগালের অধিনায়ক যা নিয়ে চর্চা সৃষ্টি হল। ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এসে কথা শুরু করবার আগেই টেবিল থেকে কোমল পানীয়ের বোতল গুলি সরিয়ে দেন তিনি। টেবিলে থাকা বোতল গুলো খুব বড় এক স্পন্সর ছিলো কোকাকোলা। স্বাস্থ্য সচেতন রোনালদো মানুষকে কোমল পানীয় নয় শুধু পানি খেতে বলেছেন।

আর টেবিল থেকে সরিয়ে দিয়েছেন কোকোকোলাকে। ব্যস অমনি শেয়ারবাজারে কোকোকোলার ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। আর আধঘণ্টার মধ্যেই শেয়ারবাজারে কোকোকোলার দাম চড়চড় করে কমতে শুরু করেছে। এর ফলে ব্র্যান্ড মূল্য ৪০০ কোটি ডলার কমে গিয়েছে অর্থাৎ ৩৩ হাজার ৯১৫ কোটি টাকা কমে গিয়েছে। সামাজিক মাধ্যমে রোনালদোর অনুগামী সংখ্যা ব্যাপক। ফেসবুক, ইন্সট্রাগ্রাম, টুইটার মিলিয়ে তাকে ৫৩ কোটি মানুষ ফলো করেন।

এর মধ্যে ইনস্টাগ্রামেই প্রায় ২৯ কোটি ৮০ লাখ মানুষ তাকে ফলো করেন। স্বাভাবিকভাবেই তার অনুসারীরা তার প্রত্যেকটি পোস্ট তার প্রত্যেকটি ভিডিও ফুটেজ খুব ভালোভাবে লক্ষ্য করেন। ২০১৯ সালের গবেষণায় দেখা যায় যে ইনস্ট্রাগ্রামে পণ্যের দূতিয়ালি বাবদ ৯ লাখ ৭৫ হাজার টাকা আয় করেন রোনালদো। তাই স্বাভাবিক ভাবেই তিনি যখন গতকাল সংবাদ সম্মেলনে কোকাকোলার বোতল দিয়ে রাখেন তখন এর আঁচ যে শেয়ারবাজারে পড়বে তা অনুমান করা গিয়েছিলো। কিন্তু এতোখানি হারে সেই প্রভাব পড়বে তা অনুমান করা যায়নি।

One thought on “রোনালদোর এক কান্ডে কোকাকোলা ৩৩ হাজার কোটি খোয়ালো!

Leave a Reply