চরিত্র নিয়ে খারাপ মন্তব্য করায় ভরা রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের কলার ধরে বেধড়ক পেটালেন মহিলা, ভাইরাল হলো সেই ভিডিও

আজকের দুনিয়ায় রক্ষক যখন ভক্ষক এই কথাটাই বারবার উঠে আসে বিভিন্ন কারণে।যে পুরুষের কাজ নারীদের নিরাপত্তা দেওয়া সেই পুলিশরাই মাঝে মাঝে এমন কাণ্ড করে বসেন যে সংবাদের শিরোনামে আসতে বাধ্য হয় ঠিক সেভাবেই এবার আমাদের দেশে এক ট্রাফিক পুলিশ কনস্টেবল এমনই এক কাণ্ড করলেন যা কার্যত ইন্দা জনক বটে।এক মহিলার চরিত্র নিয়ে কটূক্তি করেন বলে অভিযোগ পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে ঘটনাটি ঘটেছে কলবা দেবিল কটন এক্সচেঞ্জ নাকায়। ঘটনার জেরে প্রকাশ্য রাস্তাতেই ওই মহিলা ট্রাফিক পুলিশের কলার ধরে বেধড়ক পেটালেন।ঘটনার দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

জানা গিয়েছে ওই মহিলা হেলমেট ছাড়া গাড়ি চালাচ্ছিলেন আর ওই ট্রাফিক পুলিশ তাকে পথ আটকানো এরপর ওই মহিলা ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন।তারপর বচসা এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে ওই পুলিশ কনস্টেবল মহিলার চরিত্র নিয়ে কটূক্তি করেন আর তখন মহিলা নিজেকে স্থির রাখতে না পেরে সোজা পুলিশ কনস্টেবলের কলার ধরে তাকে পেটাতে থাকেন ,এরপর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন মহিলা পুলিশকর্মীরা এবং তারাই অভিযুক্ত মহিলা সাদ্বিকা রমাকান্ত তিওয়ারি এবং তার সহযোগী মহসিন খান কে লোকমান্য তিলক মার্গ থানায় নিয়ে যায় এবং সেখানে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে।

তবে মহিলাও কিন্তু পাল্টা অভিযোগ করেছেন কিন্তু পুলিশকে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কারণ পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে ওই কনস্টেবল মহিলার বিরুদ্ধে কোনো রকম অপ ভাষার ব্যবহার করেননি।ভিডিওটি শেয়ার হতে না হতেই তুমুল ভাইরাল হয়ে যায় তার সঙ্গে ব্যাপক বিতর্ক তৈরি হয়।এমনকি ওই মহিলার কার্যকলাপের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত।

তবে মহিলার এমন আচার আচরণ নিয়ে কার্যত নেট দুনিয়ায় নিন্দার ঝড় উঠেছে কেউ কেউ বলছেন ওই মহিলার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত কারণ এই ধরনের আচরণ কখনোই কাম্য নয় আর এটি মুম্বাই পুলিশের সম্মানের প্রশ্ন জড়িয়ে আছে।একইসঙ্গে শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত বিষয়টির সঙ্গে মহিলার সঙ্গে মোকাবিলা করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন পাশাপাশি এটি মুম্বাই পুলিশের সম্মানের বিষয় বলেও তিনি মারাঠি তে লিখে জানিয়েছেন।

error: Content is protected !!