এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির মৃতদেহ কাঁধে নিয়ে এক কিলোমিটার হাঁটবেন মহিলা সাব ইন্সপেক্টর, স্যালুট জানাচ্ছে গোটা দেশ

  • 666
    Shares

সোশ্যাল মিডিয়া বর্তমানে যার নেটওয়ার্ক এত দূর অবধি বিস্তৃত হয়েছে যে কথা নতুন করে কাউকে বলে বোঝাতে হয় না।তথ্য সরবরাহ করা থেকে শুরু করে অজানা অচেনা মানুষকে চেনা কিংবা তার সঙ্গে বর্তমানে যেভাবে নতুন নতুন ও প্রতিভাবান শিল্পীদের জায়গা করে দিচ্ছে এই সোশ্যাল মিডিয়া তা এককথায় পদ্ম এবং এভাবেই প্রতিদিন আমরা নানান অবাক করা জিনিস এর সাক্ষী থাকে।কিছু কিছু ঘটনা আমাদের বিনোদন দেয় কিছু কিছু ঘটনা আমাদের আনন্দ দেয় আবার কিছু ঘটনা আমাদের দুঃখ দেয় কিন্তু এমন কিছু ঘটনা ঘটে যা আমাদের মনকে গর্বিত করে তোলে।

দেশবাসী হিসেবে গর্বিত করে তোলে আবার যে মানুষটির জন্য গর্ববোধ করি তাকে স্যালুট জানাতে ইচ্ছে করে।ঠিক সেভাবেই বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার হাত ধরে আরও একটি ভিডিও রীতিমত তোলপাড় করে বেড়াচ্ছে সামাজিক মাধ্যম কে। সোমবার এক গৃহহীন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির মৃতদেহ কে কাঁধে করে এক কিলোমিটার বইলেন এক মহিলা সাব ইন্সপেক্টর,80 বছরের ওই বৃদ্ধের মৃতদেহ নিয়ে যেতে কেউ এগিয়ে আসছিলেন না, অন্ধ্রপ্রদেশে শ্রীকাকুলম জেলার কাশীবুগা-পলাসার সমপঙ্গিপুরম গ্রামের এই ঘটনা রীতিমতো চমকে দেওয়ার মতোই।

ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসার পর একদিক থেকে যেমন ওই মহিলা পুলিশ সাব-ইন্সপেক্টর কে সকলে বাহবা দিচ্ছে অন্যদিকে আবার স্যালুট জানাচ্ছে অনেকেই।অন্ধপ্রদেশের এই জায়গাটিতে কাজু খেতে হঠাৎই এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পেয়ে পুলিশ এবং মৃত্যুর খবর শুনে মহিলা সাব-ইন্সপেক্টর কোট্টুরু সিরিশা অন্যান্য পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছান। ওই মহিলা পুলিশ কনস্টেবল জানিয়েছেন তিনি ঘটনাস্থলে এসে জানতে পারেন ওই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে কাজু খেতে।

কিন্তু সেখান থেকে একার পক্ষে বের করে আনা কোনভাবেই সম্ভব নয় তাই তিনি স্থানীয়দের অনুরোধ করেছিলেন সাহায্যের জন্য কিন্তু কেউ এগিয়ে আসলে তখন কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে তিনি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ওই অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির মৃতদেহ থেকে বাইরে বের করে আনেন।যেহেতু ওই ব্যক্তির গায়ে কোন রকম আঘাতের চিহ্ন নেই তাই মৃত্যু রহস্যজনক নয় এমনটাই জানাচ্ছেন সিরিশা নামের ওই মহিলা সাব-ইন্সপেক্টর।এর পাশাপাশি তিনি আরো জানিয়েছেন তারা ওই ব্যক্তির মৃতদেহ নিয়ে গাড়ি অবধি পৌঁছতে 25 মিনিট সময় লেগে গিয়েছিল এবং শেষ পর্যন্ত তাঁর এই কর্মকান্ডের সামিল হয়েছিলেন আরও এক মহিলা পুলিশ কর্মী ও অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির সৎকারের সাহায্য করেছিলেন।

প্রসঙ্গত শিরিশা নামের ওই মহিলা সাব-ইন্সপেক্টর এর 12 বছরের এক সন্তান রয়েছে। তিনি আরো জানিয়েছেন তার বাবার 4 সন্তানদের মধ্যে তিনি একজন এবং তার বাবা সবসময় চাইতেন তার চার সন্তানের মধ্যে কেউ একজন পুলিশ হোক আর সেই হিসেবে তিনি বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে পেরে যথেষ্টই খুশি।

One thought on “এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির মৃতদেহ কাঁধে নিয়ে এক কিলোমিটার হাঁটবেন মহিলা সাব ইন্সপেক্টর, স্যালুট জানাচ্ছে গোটা দেশ

error: Content is protected !!