এইভাবে সহজ পদ্ধতিতে ডিম‌ দিয়ে এই রেসিপিটি করলে সকলে চেটেপুটে খাবে, রইল ভিডিও

প্রতিদিন একই ধরনের খাবার খেতে খেতে খাবারের প্রতি একটা বিরক্তি ভাব তৈরি হয়।রোজ খাওয়ার সময় একই রকমের খাবার দেখলেন একটা একঘেয়ে রকম লাগে। তাই প্রতিদিন নিত্যনতুন খাবার রান্না করার প্রয়োজন। রোজ রোজ একই খাবার খাওয়ার মধ্যে একটা বিরক্তি আছে তাই হাতের কাছে থাকা সামান্য উপকরণ দিয়ে যদি নিত্যদিন নিত্য ধরনের উপকরণ বানানো যায় তাহলে একঘেয়েমিও যেমন কাটে ঠিক তেমনি একইসাথে মুখের স্বাদ ও বদলায়। আজকের প্রতিবেদনে বলবো ডিমের কোরমা কী করে তৈরি করতে পারবেন।

ডিমের কোরমা তৈরি করবার জন্য প্রথমে একটি বাটিতে আটটি সিদ্ধ ডিম নিয়ে নিন। তারপর ডিমগুলোকে মাঝখান থেকে কিছুটা চিড়ে নিন। ডিমগুলিকে কিছুটা চিড়ে নিলে এর মধ্যে মশলা আর নুনগুলো ভালোমতো ঢুকে যাবে। এরপর ডিমের মধ্যে অল্প পরিমাণে নুন আর লঙ্কার গুঁড়ো ছড়িয়ে দিন। এরপর কড়াইতে 2 টেবিল চামচ ভেজিটেবল অয়েল ও 2 টেবিল-চামচ ঘি দিয়ে দিন।

এরপর তেল আর ঘি একসাথে ভালো করে মিশিয়ে গরম করে নিন। তারপর এরমধ্যে মাঝারি সাইজের দুটো পেঁয়াজ কুচি করে কেটে দিন। এরপরে পেঁয়াজগুলো হালকা ভাজা হয়ে গেলে পেঁয়াজ গুলোকে কড়াই থেকে তুলে নিন। এরপর মৃদু আঁচে ডিম গুলিকে লাল করে ভেজে নিন। এরপর কড়াইতে তেলের মধ্যে ছোট এলাচ তিনটি,দুইটি তেজপাতা, দারুচিনি দিয়ে ফোড়ন দিয়ে দিন।

এরপর এরমধ্যে মাঝারি সাইজের পেঁয়াজ মিহি করে বেটে নিয়ে নাড়াচাড়া করে কিছুক্ষণ কষিয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ কষিয়ে নেওয়ার পর আদা রসুন বাটা, পরিমাণ মত লবন,৩/৪ চামচ গরম মশলার গুঁড়ো,১/৪ চামচ জিরে গুঁড়ো দিয়ে দিন। হলুদ ব্যবহার করবেন না। এরপর এই মিশ্রণের মধ্যেৎকাজু বাদাম বাটা দিয়ে এর মধ্যে সিদ্ধ ডিম গুলো দিন আর কিছুক্ষণ কষিয়ে নিন। ডিমগুলো কষা হয়ে গেলে লঙ্কার গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন।

এরপর কিছুক্ষণ কষানো হয়ে গেলে এতে এক কাপ পরিমাণ দুধ বা টক দই ফেটিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন। এর মধ্যে কাঁচা লঙ্কা দিন। এবার আগে থেকে ভেজে রাখা পেঁয়াজ গুলি এর মধ্যে ছড়িয়ে দিয়ে কিছুক্ষণ ঢাকনা চাপা দিয়ে রাখুন। এরপর ঢাকনা খুলে গরম গরম পরিবেশন করুন ভাত বা রুটির সাথে।

One thought on “এইভাবে সহজ পদ্ধতিতে ডিম‌ দিয়ে এই রেসিপিটি করলে সকলে চেটেপুটে খাবে, রইল ভিডিও

Leave a Reply